fbpx

পৃথিবীর সবচেয়ে উন্নত দেশগুলো যেমন ফিনল্যান্ড, জাপান, নরওয়ে ইত্যাদিতে স্কুল শিক্ষকতা হচ্ছে ঐ দেশগুলোর সবচেয়ে মর্যাদাপূর্ণ এবং সবচেয়ে বেশি বেতনের পেশাগুলোর মধ্যে একটি। কারণ তারা ভালোভাবেই জেনে গেছে যে একটি দেশ ও জাতিকে উন্নয়নের শীর্ষে নিতে হলে দেশের শিক্ষাব্যাবস্থাকে সবচেয়ে ভালো হতে হবে। আর একটি দেশের শিক্ষার মান উন্নত হয় ঐ দেশের শিক্ষকদের কল্যাণেই। সে কারণেই এই দেশগুলোতে শিক্ষক হিসেবে নির্বাচন করা হয় দেশের সেরা গ্র্যাজুয়েটদের।

এক্ষেত্রে ফিনল্যান্ডের উদারহণ টানা যেতে পারে। ফিনল্যান্ডের একটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে আপনি শিক্ষক হিসাবে নিয়োগ পেতে চাইলে আপনাকে আপনার ক্লাসে প্রথম ১০ জনের মধ্যে থাকতে হবে। এর বাইরে হলে আপনি অ্যাপ্লাই করতেই পারবেন না। 

অ্যাপ্লাই করার পর প্রতি প্রার্থী এক বছরেরও বেশি সময় কোনও না কোনও স্কুলের সাথে যুক্ত থাকেন। এই এক বছর সময় ধরে চলে তাদের নানারকম প্রশিক্ষণ। স্কুলের সবচেয়ে ভালো শিক্ষকদের সাথে থেকে তাদের ক্লাস দেখতে হয়। এরপর কিছুদিন পর তাকে নিজে ক্লাস নেয়ার উপযুক্ত মনে হলে তবেই তাকে নিজে নিজে ক্লাস নিতে দেয়া হয়, তার আগে নয়। তবে তখন আবার সিনিয়র শিক্ষকরা তাদের ক্লাসগুলো নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণ করেন। মাঝে মাঝে আবার শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের বিশেষ প্রশিক্ষকরা এসে সেই ক্লাসগুলো মূল্যায়ন করেন। 

শিক্ষকতার যে উল্লেখযোগ্য বিষয়গুলোর উপর প্রার্থীর মূল্যায়ন হয়, তা হলো – সে ক্লাসটা কত ইন্টারেস্টিংভাবে নিচ্ছে, তার গ্রুপওয়ার্কগুলো কেমন হচ্ছে, শিক্ষার্থীরা ক্লাসে মনোযোগ দিচ্ছে কিনা, ঠিকমতো শিখছে কিনা ইত্যাদি। 

Teachers Time - teacher selection process in FinlandTeachers Time - teacher selection process in Finland

এক বছরের এই প্রশিক্ষণে থাকে ভাইভা, লিখিত পরীক্ষা আর সবশেষে প্র্যাকটিক্যাল (আসল ক্লাস নেয়া) পরীক্ষা। এই এক বছরের প্রশিক্ষণের পর সব প্রার্থীদের মধ্যে থেকে বাছাই করে সেরা ১০% প্রার্থীকে নিয়োগ দেয়া হয় প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক হিসাবে।

ভেবে দেখুন, ইউনিভার্সিটির সেরা ১০ জন ছাত্রছাত্রীদের মধ্যে থেকে প্রাথমিকভাবে বাছাইকৃতদের মধ্যে থেকে ছেঁকে মাত্র সেরা ১০% গ্র্যাজুয়েটকে নিয়োগ দেয়া হচ্ছে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক হিসাবে। তাহলে গাণিতিক হিসাবে বলা যায়, ফিনল্যান্ডের সেরা ১% গ্র্যাজুয়েটদের আসলে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক হচ্ছেন।

এখন তাহলে ভাবছেন বাকিদের কি হচ্ছে? বেচারারা একটা বছর খাটাখাটি করে এখন তবে বাদ পড়লো। এরকম হলে তো আমি পরীক্ষাই দিতে যেতাম না।

বিষয়টি মোটেও এমন নয়। বাকিদের মধ্যে পরের সেরা প্রার্থীরা সুযোগ পায় হাইস্কুল এবং কলেজ লেভেলে শিক্ষক হওয়ার। আর সব শেষে যারা থাকেন তারা সুযোগ নেন ইউনিভার্সিটির শিক্ষক হওয়ার এবং এই ইউনিভার্সিটিতে শিক্ষক নিয়োগের সময় তারা যে এক বছর প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক হওয়ার জন্য প্রশিক্ষণ পেয়েছেন এই ব্যাপারটিকে অনেক গুরুত্ব সহকারে বিবেচনা হয়। এটার জন্য তারা অন্যদের তুলনায় এক্সট্রা কিছু মার্কসও পায়।

যারা ইউনিভার্সিটিতেও শিক্ষক হতে পারেন না, তারাও কিন্তু এই এক বছরকে তাদের জীবন থেকে নষ্ট হল বলে মনে করেন না। তারা এই এক বছরকে তাদের জীবনের সেরা প্রশিক্ষণ এবং নিজের দক্ষতা উন্নয়নের একটি সুযোগ হিসাবে দেখেন। কারণ তারা জানেন একজন প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষককে প্রতিদিন যে পরিমাণ চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করতে হয় সেটি অন্য কোন জবে করতে হয় না। সাধারণত যারা ফিনল্যান্ডের স্কুল শিক্ষক হওয়ার এই প্রশিক্ষণ পান, তাদের অন্য যেকোনো সেক্টরে ভালো করতে দেখা যায়।

 

কেন ফিনল্যান্ড পৃথিবীর অন্যতম সেরা একটি শিক্ষাব্যাবস্থা হিসাবে বিবেচিত হয় এখন আশা করি পাঠক বুঝতে পেরেছেন। যেই দেশ নিজের সেরা ছাত্রছাত্রীদের বাছাই করে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক হতে সেই দেশের ছাত্রছাত্রীরা তো পৃথিবীসেরা হবেই।

 

শিক্ষকদের দক্ষতা বাড়াতে Teachers Time থেকে আমরা শুরু করেছি Effective Teaching এর মত বেশ কিছু জরুরী বিষয়ের উপর Certificate Course , শিক্ষকরা যা থেকে আশাজনকভাবে উপকৃত হচ্ছেন।

2 Shares

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *