­

জীবন প্রতিশ্রুতিপুর্ণ। আমারা প্রতিদিনই প্রায় কিছু না কিছুর সাথে অঙ্গীকারবদ্ধ হই। সুন্দর সম্পর্ক রক্ষার ক্ষেত্রে প্রতিশ্রুতি বজায় রাখা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। হোক সেটা ব্যক্তিগত, সামাজিক কিংবা কর্মক্ষেত্রে। বিভিন্ন সময়েই আমরা আমাদের নানা কাজ সম্পাদনের জন্য অথবা লক্ষ্য নির্ধারণ এবং অর্জনে নানান প্রতিশ্রুতি নিয়ে ও দিয়ে থাকি।

প্রমিস বা কথা দিয়ে কথা না রাখতে পারার ফলে অনেক ভালো সম্পর্ক খারপ হয়ে ওঠে। এমনকি কথা না রাখা সেই মানুষ আর তার সাথে সম্পর্কে অবিশ্বাসের সৃষ্টি হয়। তাই আমাদের উচিৎ কাউকে করা প্রতিশ্রুতি বা প্রমিস রক্ষা করা। তবে অনেক সময় দেখা যায় শুধু অন্যের দিক বিবেচনা করে, কাউকে সাময়িক সময়ের জন্য খুশি করার ক্ষেত্রে আমরা এমন কিছু কথা বা প্রমিস করে থাকি যেগুলো পরবর্তিতে পূরণ করা আমাদের জন্যই খুব কষ্টের হয়ে দাঁড়ায়। সুতরাং কোনো কিছু অঙ্গিকার করার আগে তা পূরণ করা সম্ভব কিনা তা মাথায় রাখতে হবে।

প্রতিশ্রুতি দেওয়ার ক্ষেত্রেঃ

  • অন্যের অনুভূতি বিবেচনা করুন। যেমন, আপনি যদি কারো প্রতিশ্রুতি ভঙ্গ করেন তবে তাদের অনুভূতিগুলি তারা কীভাবে অনুভব করবে তা বিবেচনা করুন।
  • আপনি কতোটুকু সক্ষম তা ভেবে নিন। আপনার দেওয়া কথা রাখতে আপনি কী করতে পারবেন এবং কী করতে পারবেন না তা জেনে নিন। বার বার ভাবুন, প্রয়োজনে নিজের সমস্যাগুলো তার সাথে আলোচনা করতে পারেন।
  • আপনার কথাটি আপনার ‘বন্ধন’। তাই এটিকে পূরণ বা রক্ষায় গুরুত্ব দিন।
  • সম্পর্ক বিবেচনা করে প্রতিশ্রুতি দিন।
  • শুধুমাত্র অন্যকে সন্তুষ্ট করার জন্য কাউকে কোনো কিছু প্রমিস না করাই শ্রেয়। এতে সম্পর্ক নষ্ট হয় এবং তা অবিশ্বাসের জন্ম দেয়।
  • “Action speaks louder than words” – প্রচেষ্টা করুন, হতে পারে কাজটি সহজ নয় তবে কঠিন কাজটির মধ্যে কিছুটা হলেও পার্থক্য তৈরী করে দেবে আপনার করা চেষ্টাগুলো।
  • আপনি প্রতিশ্রুতি দেওয়ার আগে সমগ্র বিষয়গুলি নিয়ে চিন্তা করুন ( আপনার সক্ষমতা,প্রতিশ্রুতি পূরণে কি কি বাধা আসতে পারে,সম্পর্কে এর প্রভাব এবং এর ফলাফল)

প্রতিশ্রুতিগুলোই আমাদের ব্যক্তিগত, সামাজিক আর কর্মক্ষত্রের সম্পর্ককে সুন্দর করে তোলে, সুন্দর এই সম্পর্কগুলো টিকিয়ে রাখতে চাইলে সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন নিজেদের মধ্যে অঙ্গীকারবদ্ধ হওয়া, আর সেই প্রতিশ্রুতিগুলো মেনে চলা। তাহলেই দৃঢ় হবে আত্মবিশ্বাস, সুন্দর হবে সুসম্পর্কের সূচনা ও পথচলা।

0 Shares

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *