fbpx
Teachers Time - 5 Reasons of Using Teaching Learning Materials in Classroom 3

ইতিমধ্যে অনেকেই খবরটি জেনেছেন যে আমাদের শিক্ষা কারিকুলামে ব্যাপক পরিবর্তন আসছে। ২০২১ সালের পর থেকেই নতুন কারিকুলাম অনুযায়ী বই তৈরি হবে, এবং ২০২৩ সাল থেকে শিক্ষার্থীরা সে অনুযায়ী স্কুলে শিখবে। এবারের কারিকুলাম সম্পূর্ণ ভিন্ন আঙ্গিকে তৈরি হয়েছে। মূল লক্ষ্য হচ্ছে কীভাবে শিশুদের ভবিষ্যতের জন্য উপযুক্ত দক্ষতা অনুযায়ী তৈরি করা যায় সেটাকে মাথায় রেখে।

আমাদের মূল প্রতিষ্ঠান Light of Hope শুরু থেকেই কাজ করছে শিশুদের সৃজনশীলতা, সমস্যা সমাধানের দক্ষতা, মুল্যবোধ বাড়ানো নিয়ে কাজ করছে। এবার সে বিষয়গুলোই যুক্ত হচ্ছে আমাদের জাতীয় কারিকুলামে। সরকার এবং সব সহযোগী প্রতিষ্ঠানকে অসংখ্য ধন্যবাদ এই স্কিলগুলোকে মূল ধারায় যুক্ত করার জন্য।

প্রাক-প্রাথমিক থেকে শুরু করে গ্রেড ১২ পর্যন্ত প্রতিটি ক্লাসেই বিভিন্ন বিষয়ের সাথে এই স্কিলগুলো যুক্ত থাকবে। একেবারে সহজ কথায়, এখন থেকে খালি বাংলা, অংক, ইংরেজি, বিজ্ঞান ইত্যাদি সাবজেক্টের বইয়ের ভেতরেও সূক্ষ্মভাবে নিচে উল্লেখ করা স্কিলগুলো থাকবে – যেগুলো শিশুকে অর্জন করতে হবে।

নতুন কারিকুলাম এর ১০টি দক্ষতা

নতুন কারিকুলামে শিশুকে যে দক্ষতাগুলো অর্জনের জন্য জোর দেয়া হবে তার তালিকা নিচে দেয়া হল। পাশাপাশি আমরা ছোট্ট করে কিছুটা বর্ণনা দিয়ে দিচ্ছি যেন শিক্ষক এবং অভিভাবকদের জন্য সুবিধা হয় এখন থেকেই এই বিষয়গুলোর জন্য প্রস্তুতি নিতে পারেন। আমরা ২০১৮ সাল থেকেই এই স্কিলগুলোর উপর শিক্ষকদের এবং অভিভাবকদের বিভিন্ন কোর্স, প্রশিক্ষণ, ওয়ার্কশপ করিয়ে আসছি।

চলুন এক নজরে জেনে নেই নতুন কারিকুলামের দক্ষতাগুলোঃ

  1. Critical Thinking Skills (সূক্ষ্মচিন্তন দক্ষতা): কোন একটি বিষয়কে বা সমস্যাকে সমাধান করার জন্য তথ্য-উপাত্ত সংগ্রহ, অনুসন্ধান করা, বিশ্লেষণ করার দক্ষতাই হচ্ছে Critical Thinking skills. এই দক্ষতার মাধ্যমে আপনার শিশু বা শিক্ষার্থী সমস্যার সমাধান করে সেই ব্যাপারে সঠিক সিদ্ধান্ত নিতে পারবে।
  2. Creative Thinking Skills (সৃজনশীল চিন্তন দক্ষতা): গতানুগতিক চিন্তার বাইরে গিয়ে নিজস্ব মতামতের ভিত্তিতে নতুন ধারণা সৃষ্টি এবং বাস্তবায়নের দক্ষতাই হচ্ছে Creative Thinking skills. Kids Time প্রথম থেকেই এই স্কিল নিয়ে কাজ করছে শিশুদের সাথে। আমাদের ক্র্যাফট, storymaking course মূলত এই স্কিল তৈরিতেই সাহায্য করে শিশুদের।
  3. Problem-solving Skills (সমস্যা সমাধানের দক্ষতা): কোন একটা সমস্যা কেন হয় সেটা বিশ্লেষণ করা এবং সেই অনুযায়ী বিভিন্ন পদ্ধতি ব্যবহার করে সেই সমস্যা কীভাবে সমাধান করতে হয় এই দক্ষতা শিশুকে অর্জন করতে হবে। নতুন কারিকুলামে প্রতিটি প্রাক-প্রাথমিক থেকে গ্রেড ১২ পর্যন্ত এই দক্ষতার উপর বিশেষ জোর দেয়া হয়েছে। অভিভাবক এবং শিক্ষকদের জন্য খুব দরকারি হচ্ছে জানা এবং বোঝা যে তারা কীভাবে শিশুদের মধ্যে স্কুলে এবং বাসায় এই স্কিলটি দিতে পারবেন।
  4. Decision making Skills (সিদ্ধান্ত গ্রহণের দক্ষতা): আগের ৩ টি স্কিল সঠিকভাবে আয়ত্ত করতে পারলে Decision-making skill শিশুদের মধ্যে সহজেই তৈরি হবে। সিদ্ধান্ত গ্রহণের ক্ষেত্রে যুক্তি এবং তথ্যকে প্রাধান্য দিয়ে সিদ্ধান্ত নেয়ার ব্যাপারে জোর দেয়া হবে এখানে।
  5. Communication Skills (যোগাযোগ দক্ষতা): অনেকেই ভাবেন ইংরেজিতে সুন্দর করে বা বাংলাতে গুছিয়ে কথা বলতে পারাই বুঝি communication skill. আসলে কার্যকরভাবে এবং সহজবোধ্য উপায়ে নিজের মতামতকে প্রকাশ করাই হল communication skills. এক্ষেত্রে বলা, শুনা, লেখা এবং অন্যের কথা সঠিকভাবে বোঝা – এই ৪ টি বিষয়ই আছে।
  6. Self-management skills (স্ব-ব্যবস্থাপনা দক্ষতা): Self-management skills কিছু দক্ষতার সমন্বয়ে তৈরি হয় শিশুর মধ্যে। এগুলো হলঃ আত্মসচেতনতা ও আত্ম-বিশ্লেষণ করার দক্ষতা, আবেগিক ও সামাজিক দক্ষতা, আত্মনিয়ন্ত্রণ, প্রাত্যহিক জীবনযাপন দক্ষতা, সময় ব্যবস্থাপনা ইত্যাদি। বিশেষ করে ছোট শিশুদের জন্য self-control, emotional intelligence দক্ষতাগুলো হচ্ছে ভবিষ্যতে তার সফল হওয়ার পেছনে সবচেয়ে গুরুত্বপুর্ণ দক্ষতা।
  7. Collaboration Skills (সহযোগিতামূলক দক্ষতা): দলীয়ভাবে কাজ করে কোন একটা সমস্যা সমাধান করতে পারার দক্ষতাকেই Collaboration skill বলা হয়। এজন্য একজন শিক্ষার্থী বা শিশুর মধ্যে অন্যর মতামতকে প্রাধান্য দেয়া, দলগত চেতনা তৈরি করা, ভালো যোগাযোগ দক্ষতার মাধ্যমে দলের সদস্যদের উৎসাহিত করতে পারার মতো দক্ষতা তৈরি হতে হবে।
  8. Global Citizenship Skills (বিশ্ব নাগরিকত্ব দক্ষতা): আপনার শিশু বা শিক্ষার্থী নিজেকে কত তাড়াতাড়ি একজন বিশ্ব নাগরিক হিসাবে গড়ে তুলতে পারবে? সে বাংলাদেশের নাগরিক হিসাবে বিশ্ব দরবারে কীভাবে উপস্থাপন করতে পারবে, অন্য দেশের সংস্কৃতি, ভাষা, মানুষদের কীভাবে যাচাই করতে পারবে, কীভাবে সবাইকে নিয়ে একটা সুখী পৃথিবী গড়ে তোলার স্বপ্ন দেখে? ভবিষ্যতের পৃথিবীতে নিজেকে প্রমাণ করতে কেবল দেশের নাগরিক হওয়ার পাশাপাশি বিশ্ব নাগরিকও হতে হবে।
  9. Employability Skills (জীবিকায়ন দক্ষতা): কেবল স্কুলের পরীক্ষায় ভালো ফলাফল নয়, বরং শিক্ষার্থী কতটা নিজেকে ভবিষ্যতের কাজের ক্ষেত্রে প্রস্তুত করতে পারছে? Light of Hope প্রথম থেকেই এই ব্যাপারটিতে ফোকাস করে আসছে। আজকে যেসব শিশু প্রাথমিক লেভেলে পড়ছে তাদের ৭০% এমন একটা কাজে ভবিষ্যতে প্রবেশ করবে যার অস্তিত্বই এখন নেই। শিক্ষার্থীকে বা আমার সন্তানকে এখন থেকেই আমি সৃজনশীলতা, সমস্যা সমাধানের দক্ষতা, ICT, Coding, Communication Skill ইত্যাদি বিষয়ে দক্ষ করে তুলতে পারছি?
  10. Foundational Skills – Literacy, Numeracy and Digital Literacy (মৌলিক দক্ষতা): পুরো কারিকুলামে ১০ স্কিলের মধ্যে কেবল শেষের ১ টির ফোকাস হচ্ছে Foundational Skills. আগের কারিকুলামে এই স্কিলগুলোর উপরেই বেশি প্রাধান্য দেয়া হতো। এগুলোর উপর ভিত্তি করেই পাবলিক পরীক্ষা বা স্কুলের পরীক্ষা হতো। এখন এর সাথে আরও ভালোভাবে যুক্ত হয়েছে ICT এবং Digital Literacy স্কিল। নতুন কারিকুলামে এখন উপরের ৯টি স্কিলের উপর অনেক বেশি জোর থাকছে। পাশাপাশি মূল্যায়নও অনেক পরিবর্তন আসছে।

আগামী ২০২৩ সাল থেকেই শুরু হতে যাচ্ছে নতুন কারিকুলাম অনুযায়ী স্কুল এবং কলেজগুলোর যাত্রা। তাই এখন থেকেই শিক্ষকদের নতুন কারিকুলাম অনুযায়ী কীভাবে শিক্ষার্থীদের প্রস্তুত করতে হবে সেটা নিয়ে নিজেদের দক্ষতার উন্নয়ন শুরু করে দেয়া দরকার।

আমরা আমাদের প্লাটফর্ম থেকে ইতিমধ্যে এই ধরণের বিভিন্ন বিষয়ের উপর কোর্স এবং প্রশিক্ষণ চালু করেছি। পাশাপাশি অভিভাবকদের জন্য রয়েছে এই দক্ষতাগুলো নিজের সন্তানদের মধ্যে বাড়ানোর জন্য বিভিন্ন টিপস, কোর্স এবং কন্টেন্ট।

কারিকুলামের এই ব্যাপক পরিবর্তন এবং এ সম্পর্কিত আরও তথ্য সামনের দিনগুলোতে আমরা ধারাবাহিকভাবে প্রকাশ করবো। এই বিষয়গুলো নিয়ে নিয়মিত আপডেট পেতে এবং নতুন নতুন প্রশিক্ষণ নিয়ে নিয়মিত আপডেট পেতে আমাদের প্লাটফর্মে রেজিস্ট্রেশন করে রাখুন।

6 Shares

1 Comment

  • সময় উপযোগি কোর্স।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *